ena
maisha
bioMed

যেভাবে লাইভ দেখা যাবে বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট উৎক্ষেপণ

ঢাকা, ১০ মে, এবিনিউজ : বাংলাদেশের তথ্য-প্রযুক্তির ক্ষেত্রে নতুন যুগের সূচনা হতে যাচ্ছে আজ। যুক্তরাষ্ট্রের বেসরকারি মহাকাশ সংস্থা স্পেসএক্সের ফ্যালকন ৯ রকেটের অত্যাধুনিক মডেল ‘ব্লক ফাইভ’ এ চড়ে, আজ বৃহস্পতিবার ফ্লোরিডার স্থানীয় সময় ৪টা ১২ মিনিটে (বাংলাদেশ সময় রাত ২টা ১২ মিনিটে) কেনেডি স্পেস সেন্টারের ঐতিহাসিক লঞ্চ কমপ্লেক্স ৩৯-এ থেকে মহাকাশের উদ্দেশ্যে যাত্রা শুরু করবে বাংলাদেশের প্রথম স্যাটেলাইট বঙ্গবন্ধু-১। এই লঞ্চ কমপ্লেক্স থেকেই ১৯৬৯ সালে চন্দ্রাভিযানে রওনা হয়েছিল অ্যাপোলো-১১।

সব কিছু ঠিক থাকলে আজ বৃহস্পতিবার মহাকাশে পাড়ি দিতে চলেছে বাংলাদেশের প্রথম স্যাটেলাইট বঙ্গবন্ধু-১। এরই মধ্যে কেনেডি স্পেস সেন্টার টুইটার এক বার্তায় এই উৎক্ষেপণের সাক্ষী হতে সবাইকে আমন্ত্রণ জানিয়েছে। এ জন্য কেনেডি স্পেস সেন্টারের পক্ষ থেকে ভিজিটর কমপ্লেক্সে দর্শকদের জন্য বিশেষ ব্যবস্থাও করা হয়েছে।

আগ্রহীরা সারা দিনের জন্য টিকেট কেটে কেনেডি স্পেস সেন্টারের লঞ্চ প্যাড থেকে প্রায় ৩ দশমিক ৯ মাইল দূরে অ্যাপোলো/স্যাটার্ন ভি সেন্টার এবং প্রায় সাড়ে ৭ মাইল দূরে মূল ভিজিটর কমপ্লেক্স থেকে এই উৎক্ষেপণ দেখার সুযোগ পাবেন।
 

বঙ্গবন্ধু-১ স্যাটেলাইট উৎক্ষেপণ ওয়েবে বিশ্বব্যাপী লাইভ সম্প্রচার করবে স্পেসএক্স। www.spacex.com/webcast থেকে বাংলাদেশের এই ঐতিহাসিক মাহেন্দ্রক্ষণের সাক্ষী হতে পারবেন সকলেই। ইউটিউবে স্পেসএক্সের চ্যানেলেও লাইভ সম্প্রচার করা হবে বঙ্গবন্ধু-১ স্যাটেলাইট নিয়ে ফ্যালকন-৯ ব্লক ফাইভ রকেটের যাত্রা।

স্পেসএক্স এবারই প্রথম স্যাটেলাইট উৎক্ষেপণে তাদের ফ্যালকন-৯ রকেটের ব্লক ফাইভ মডেল ব্যবহার করতে যাচ্ছে। ব্লক ফাইভ স্পেসএক্সের একটি অনন্য রকেট, যা পুনরায় ব্যবহারযোগ্য।

স্পেসএক্স কর্তৃপক্ষের মতে, এই রকেট উৎক্ষেপণের ৪৮ ঘণ্টার মধ্যে এটি আবারও উড়তে সক্ষম। এমনকি এটি ১০ বার পর্যন্ত বহন কাজে সক্ষম। মূলত মহাকাশে একই রকেটের মাধ্যমে একাধিকবার নভোচারী বহনের উপযোগী হিসেবেই ব্লক ফাইভ রকেট নির্মাণ করা হয়েছে। তবে নাসার নিয়ম অনুযায়ী, নভোচারী বহনের আগে এটিকে ৭ বার মানুষবিহীন ফ্লাইট পরিচালনা করতে হবে। আর এক্ষেত্রে আজ বঙ্গবন্ধু-১ স্যাটেলাইট নিয়ে প্রথমবারের মতো উড়তে যাচ্ছে ব্লক লাইভ রকেট।

এদিকে, উৎক্ষেপণের সময় অনুযায়ী বাংলাদেশে ১১ মে রাত ২টা ১২ মিনিট থেকে ভোর ৪ টা ২২ মিনিটের মধ্যে বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট উৎক্ষেপণের ঐতিহাসিক মুহূর্তটি বাংলাদেশ টেলিভিশনসহ দেশের সব স্যাটেলাইট টিভি এবং অনলাইন সরাসরি সম্প্রচারের ব্যবস্থা করেছে। এ ছাড়া দেশের সব জেলা ও উপজেলাতেও সরাসরি সম্প্রচারের জন্য বিশেষ উদ্যোগ নিয়েছে স্থানীয় প্রশাসন।

এবিএন/জনি/জসিম/জেডি