ena
maisha
bioMed
ব্রেকিং নিউজ

জেনে নিন কর্পূরের ব্যবহার

ঢাকা, ১৬ মে, এবিনিউজ : মশার উৎপাত বেড়েছে? তীব্র গন্ধযুক্ত কর্পূরের সাহায্যে দূর করা যায় মশা। এ ছাড়া ঠাণ্ডা লাগা নিরাময়ে কর্পূর ব্যবহৃত হয়। পাশাপাশি রূপচর্চায়ও রয়েছে এর অনেক ব্যবহার।

* ঠাণ্ডা লাগলে ৪ ফোঁটা কর্পূর তেলের সঙ্গে ১ টেবিল চামচ আমন্ড অয়েল মিশিয়ে তুলা ভিজিয়ে নিন। তুলা বুকে ঘষুন কিছুক্ষণ। স্বস্তি মিলবে। নাক বন্ধ হয়ে গেলে গরম পানিয়ে কয়েক ফোঁটা কর্পূর তেল মিশিয়ে বাষ্প টেনে নিন। ফল মিলবে সঙ্গে সঙ্গে।

* ব্রণ দূর করতে পারে কর্পূর তেল। ১ কাপ অপরিশোধিত নারকেল তেলের সঙ্গে ১ চা চামচ কর্পূর তেল মেশান। ত্বক পরিষ্কার করে তেলের মিশ্রণ ঘষে ঘষে লাগান ব্রণের উপর। ৫ মিনিট ম্যাসাজ করে রেখে দিন সারারাত। পরদিন কুসুম গরম পানি ও ফেসওয়াশ দিয়ে মুখ ধুয়ে নিন। প্রতিদিন ব্যবহার করলে ব্রণ দূর হবে।

* ২ টেবিল চামচ নারকেল তেলের সঙ্গে ১ চা চামচ কর্পূর গুঁড়া মেশান। মিশ্রণটি চুলের গোড়ায় ঘষে ঘষে লাগান। পরদিন শ্যাম্পু দিয়ে চুল ধুয়ে ফেলুন। সপ্তাহে দুই থেকে তিনবার এভাবে ব্যবহার করলে উকুনের উপদ্রব থেকে মুক্তি মিলবে।  

* মশা ও কীটপতঙ্গ দূর করতে পারেন কর্পূরের সাহায্যে। আধা কাপ গরম পানি একটি স্প্রে বোতলে নিয়ে ২০ ফোঁটা কর্পূর তেল মেশান। ভালো করে ঝাঁকিয়ে স্প্রে করুন যেখানে মশার আনাগোনা বেশি সেখানে। কর্পূর ট্যাবলেট পাওয়া যায় বাজারে। এগুলো ঘরে রাখলেও মশার আনাগোনা কমে যাবে। একইভাবে দূর করতে পারেন ঘরে থাকা কীটপতঙ্গও। ট্যাবলেট অথবা কয়েক ফোঁটা কর্পূর তেল অথবা ঘরের কোণে ফেলে রাখলেও মুক্তি মিলবে বিরক্তিকর বিভিন্ন পোকামাকড় থেকে।

এবিএন/সাদিক/জসিম